Sunday, April 14, 2024
- Advertisment -spot_img

স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে সাঁকরাইলে বিজেপি ছেড়ে প্রায় ৩০০ জন যোগদান করলেন তৃণমূলে

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম: স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে সাঁকরাইলে (Sankril) বিজেপি (Bjp) ছেড়ে প্রায় ৩০০ জন যোগদান করলো তৃণমূল (Tmc) কংগ্রেস। ১৫ই আগস্ট রবিবার (Sunday) ভারতের (India) ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল ঝাড়গ্রাম জেলার (Jhargram District) সাঁকরাইল ব্লক (Sankril Block) এর আধাঁরী (Andari) অঞ্চলের তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্বরা।

রবিবার আঁধারী অঞ্চল তৃনমূল (Trinomul) কংগ্রেসের কার্যালয় প্রাঙ্গনে ভারতের ৭৫ তম স্বাধীনতা (independence) দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গোপীবল্লভপুর (Gopiballavpur) এর বিধায়ক ডাঃ খগেন্দ্রনাথ মাহাতো (Dr. khegendranath Mahata) সহ ওই এলাকার তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্ব গণ।

সাঁকরাইলে বিজেপি ছেড়ে প্রায় ৩০০ জন যোগদান করলেন তৃণমূলে

ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন বিধায়ক ডাক্তার খগেন্দ্রনাথ মাহাতো। স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে আঁধারী অঞ্চলের ৫০ টি পরিবারের প্রায় ৩০০ জন বিজেপি কর্মী ও সমর্থক বিজেপি দল ছেড়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। তাদের হাতে তৃণমূল কংগ্রেসের পতাকা তুলে দেন এলাকার বিধায়ক ডাক্তার খগেন্দ্রনাথ মাহাতো।

আরও খবর: রাজ্যে জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার ছাত্র ও অভিভাবকরা কি বললেন? কেমন ছিল পরীক্ষার অন্তরমহল!

বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া সকলের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেওয়ার পর তিনি বলেন আজকের দিনটি ভারতবাসী হিসাবে আমাদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর আজকের দিনে যেভাবে মানুষ তৃণমূল কংগ্রেস কে শক্তিশালী করে তোলার জন্য বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করলেন তা বিরলতম ঘটনা। তিনি বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Bandopadhyay) আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে এবং দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Bandopadhyay) নেতৃত্বে তৃণমূল কংগ্রেস কে আরও শক্তিশালী করে তোলার জন্য বিজেপি ছেড়ে মানুষ তৃণমূলে যোগদান করছেন।

আরও খবর: আদিবাসীদের পাশে রয়েছে সরকার: মমতা

তৃণমূলে যোগদান কারী সকলকেই তিনি তৃণমূলের হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান এবং তিনি তাদের সকলকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান।

ঝাড়গ্রাম জেলা জুড়ে পালিত হল স্বাধীনতা দিবস

১৫ আগস্ট, ঝাড়গ্রাম: ঝাড়গ্রাম জেলার (Jhargram District) প্রতিটি জায়গায় ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত হল। ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক (Jhargram District Magistrate) ‘জয়শী দাসগুপ্ত’ জেলাশাসক চত্বরে পতাকা উত্তোলন করেন। ছোটো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পালিত হয় ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস।

ঝাড়গ্রাম জেলা প্রেস ক্লাবের (Jhargram District Press Club) তরফ থেকে ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসে পতাকা উত্তোলন করা হয়। পতাকা উত্তলন করেন ঝাড়গ্রামের প্রাক্তন সাংসদ ডাঃ উমা সরেন। পাশাপাশি গোপীবল্লভপুর বিধানসভার ডাক্তার বিধায়ক ডাঃ খগেন্দ্রনাথ মাহাত ঝাড়গ্রামের সাঁকরাইল (Jhargram) ব্লক অফিসে পতাকা উত্তোলন করেন। এরপর সাকরাইল এবং ঝাড়গ্রাম জেলার গোপীবল্লভপুর ২ ব্লকের কেশিয়াপাতা, কুলটিকরী,

ঝাড়গ্রাম জেলা জুড়ে পালিত হল স্বাধীনতা দিবস

স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে সাঁকরাইলে বিজেপি ছেড়ে প্রায় ৩০০ জন যোগদান করলেন তৃণমূলে
নিজস্ব চিত্র

বেলিয়াবেড়া সহ একাধিক জায়গায় দলীয় কর্মীদের নিয়ে পতাকা উত্তোলন করেন ডাক্তার বিধায়ক। কৃতি ছাত্রছাত্রী দের সম্মান ও জানানো হয়। ঝাড়গ্রাম জেলার বিভিন্ন থানা তে যথাযথ মর্যাদার সাথে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করা হয়।

এতদিন দলে থেকেও পরাধীনতার জীবন জাপন করতে হচ্ছিলো। তাই স্বাধীনতা দিবস এর দিন জাতীয় পতাক তুলে সবাই বিজেপি ছেড়ে তৃনমূলে যোগ দিলেন। ঝাড়গ্রামের সাকরাইল ব্লকের লাউদহ, এবং অাধারি অঞ্চলের দুটি গ্রামের প্রায় সমস্ত রবিবার সকাল থেকেই ঝাড়গ্রাম জেলার সাকরাইল এবং গোপীবল্লভপুর দুই নম্বর ব্লকের বিভিন্ন জায়গায় পতাকা উত্তলন করছিলেন বিধায়ক ডাক্তার খগেন্দ্রনাথ মাহাত।

আরও খবর: “রথের দিন রথ উপহার”- বৃদ্ধ অজিত বাবুর মানবিকতার নিদর্শন দেখে তাকে ট্রাইসাইকেল তুলে দিল ফেসবুকের একটি গ্রুপ “আমারকার ভাষা আমারকার গর্ব”

সেরকমই সাকরাইল ব্লকের লাউদহ এবং অাধারি গ্রামে যখন পৌছান তখন সমস্ত বিজেপির কর্মী সদস্যরাও সেখানে জমায়েত হয়। এবং তারা স্বপরিবারে বিজেপি ছেড়ে তৃনমূলে যোগদানের ইচ্ছা প্রকাশ করে। দুটি গ্রাম মিলে প্রায় অশি টি পরিবার অাজ তৃনমূলে যোগদান করে। তাদের বক্তব্য বিজেপি দলে পরাধীনের মত থাকা সম্ভব নয়। সবরকম উন্নয়ন মূলক কাজ থেকে এরা দূরে থাকে। তাই বিজেপি ছেড়ে সকলে তৃনমূলে যোগদান করে।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments