Friday, May 31, 2024
- Advertisment -spot_img

আবারও অবৈধ বালি কারবারিদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযানে সাফল্য

স্টাফ রিপোর্টার, ঝাড়গ্রাম: আবারও বেআইনি বালি কারবারের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে বড়সড় সাফল্য পেল পুলিশ প্রশাসন ও ভূমি দফতর। গোপীবল্লভপুরের এসডিপিও কৃষ্ণগোপাল মিনা এবং গোপীবল্লভপুর ১ নম্বর ব্লক ভূমি দফতরের যৌথ অভিযান চালিয়ে সুবর্ণরেখা নদী থেকে অবৈধভাবে বালি তোলার অভিযোগে বাজেয়াপ্ত করা হল ৯ টি বালি বোঝাই লরি এবং ৬ টি পকলেন। জানা গেছে রবিবার মাঝ রাতে এসডিপিও এবং ভূমি দফতর গোপীবল্লভপুরের সুবর্ণরেখা নদীর সাতমা বালি ঘাট এরিয়া থেকে গাড়িগুলিকে আটক করেছে। ভূমি দফতর ও পুলিশ সুত্রে খবর, বাজেয়াপ্ত প্রতিটি গাড়িকে ঘটনাস্থানে জরিমানা করা হয়। পুলিশ সুত্রে আরো জানা গেছে,সাতমা নদী ঘাট এলাকা থেকে ৬ টি পকলেন লাগিয়ে অবৈধ ভাবে নদী গর্ভ থেকে বালি তুলে বিভিন্ন জায়গায় পাচার করছিল বলে অভিযোগ। রবিবার রাতে এসডিপিও গোপীবল্লভপুর ও ভূমি দফতরের আধিকারিকেরা সাতমা এলাকার সুবর্ণরেখা নদী ঘাটে অভিযান চালিয়ে হাতে নাতে পাকড়াও করেন। উল্লেখ্য নদী গর্ভ থেকে বালি তোলার জন্য একাধিক বার পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েছেন ঝাড়্গ্রাম জেলার গোপীবল্লভপুর, লালগড়, মাণিকপাড়া, সাঁকরাইল সহ বিভিন্ন ব্লকের মানুষজনেরা। এর আগেও সুবর্ণরেখা নদীর আঠাঙ্গি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯ টি বালি বোঝাই লরি ও ১০ টি পকলেন আটক করেছিল। পরে সেই লরি ও পকলেন গুলিকে জরিমানা করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। পরে আবারও সেই একই পদ্ধতিতে সাতমা বালি খাদানে ৬ টি পকলেন লাগিয়ে অবৈধ ভাবে বালি তোলার সময় ৯ টি বালি বোঝাই লরি আটক করেন। উল্লেখ্য অবৈধ বালি খাদান বন্ধের দাবিতে একাধিক বার বিভিন্ন মহলে লিখিতভাবে আবেদন নিবেদন করেছেন। এমনকি বেপরোয়া ভাবে বালি লরি যাতায়াত করাই অনেক সময় পথ দুর্ঘটনার কবলে পড়েন বলেও অভিযোগ করেন বাসিন্দারা।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments