Friday, May 31, 2024
- Advertisment -spot_img

Covid19 Third Wave: ‘অনিবার্য’ করোনার তৃতীয় ঢেউ, তৈরি থাকুন দেশবাসী

জঙ্গলমহল বার্তা ডেস্ক: ভারতে করোনাার (Corona) তৃতীয় ঢেউ ‘অনিবার্য’! আগামী ছয় থেকে আট সপ্তাহের মধ্যেই দেশে দেখা যেতে পারে তৃতীয় ঢেউ। এমনটাই বললেন দিল্লি এইমসের প্রধান রণদীপ গুলেরিয়া। আপাতত সংক্রমণ কমলেও আগামী ছয় থেকে আট সপ্তাহের মধ্যে ভারতে করোনাভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ আসতে পারে বলে সতর্ক করেছেন অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সের (এইমস) প্রধান চিকিৎসক রণদীপ গুলেরিয়া। ভারতে করোনার নতুন ধরন ডেলটা প্লাসের কারণে এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। Covid19

গুলেরিয়া বলেন, বিধিনিষেধ ও লকডাউন (Lockdown) তুলে নেওয়ার কারণে করোনা সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি আবারও না মানার প্রবণতা শুরু হবে। লোকসমাগম ও ভিড় বাড়বে। এ কারণে ছয় থেকে আট সপ্তাহ বা তার কিছু বেশি সময়ের মধ্যে করোনার তৃতীয় ঢেউ ছড়িয়ে পড়বে। করোনা সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা ও ভিড় এড়িয়ে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি করতে না পারলে তৃতীয় ঢেউ আসা অনিবার্য।

Covid19 Third Wave: ‘অনিবার্য’ করোনার তৃতীয় ঢেউ, তৈরি থাকুন দেশবাসী

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা জানি, করোনাভাইরাস রূপান্তরিত হতেই থাকে। সংক্রমণ প্রতিরোধে বিধি নিষেধ মেনে চলার জন্য নজরদারিও বাড়ানো প্রয়োজন। ভারতে মোট জনগোষ্ঠীর ৫ শতাংশকে করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। এ বছরের শেষে ভারত সরকার ১৩০ কোটি জনগোষ্ঠীর মধ্যে ১০৮ কোটিকে টিকা দিতে চায়।’ টিকাদানের বিষয়টি প্রধান চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছেন গুলেরিয়া। গুলেরিয়া যুক্তরাজ্যে ডেলটা ধরনের সংক্রমণের উদাহরণ তুলে ধরে বলেন, ‘সে দেশে এখন করোনা সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ চলছে। করোনাভাইরাস এখনো রূপান্তরিত হচ্ছে। আমাদের সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।’

Read More পুলিশ দিবসে নয়াগ্ৰাম থানার পুলিশ আধিকারিকদের সংবর্ধনা প্রদান

পেট্রোল ও ডিজেলের দাম ঊর্ধ্বমুখী কেন্দ্রীয় সরকারের ওপর ক্ষুব্ধ জঙ্গলমহলের বাসিন্দারা

অগাস্ট-সেপ্টেম্বরেই আছড়ে পড়তে পারে করোনার তৃতীয় ঢেউ !

আবার, সম্প্রতি এস বি আই রিচার্জের প্রকাশিত কোভিড ১৯, ‘দ্যা রেস টু ফিনিশিং লাইন’ প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে, টিকাকরণ ই একমাত্র পথ এই মারণ রোগের হাত থেকে জনজীবনকে বাঁচানোর। পাশাপাশি এটাও মনে রাখা প্রয়োজন, দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রায় ১.৭ গুণ বেশি মারাত্মক হতে চলেছে তৃতীয় ঢেউ। প্রসঙ্গত, এখনো পর্যন্ত ভারতে (India) ৪.৬ শতাংশ মানুষের সম্পূর্ণ টিকাকরণ সম্পন্ন হয়েছে।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments