Friday, May 31, 2024
- Advertisment -spot_img

সেপ্টেম্বরে কমবে মদের দাম

সানি বাগ, ওয়েব ডেস্ক: স্তব্ধ ছিল যখন জীবন এর প্রতি মুহূর্ত বন্ধ ছিল দোকান পাঠ তবুও কখনোই থেমে ছিলোনা সুরা (Alcohol) প্রেমিদের তৃপ্তির তৃষ্ণা। যদিও লকডাউনের (Lockdown) সময় জোগানে একটু সমস্যা দেখা গেলেও লকডাউন উপেক্ষা করে মদে দোকানের বাইরে লাইন ছিল চোখে পড়ার মতো। সেই সকল সুরা প্রেমিদের জন্য বড় সুখবর। সুরা পানে কমতে বাড়তি খরচ। যে খরচ লকডাউনের পর এক ধাক্কায় বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল ৩০% শতাংশ।

আরও খবর: ঝাড়গ্রামে একটি মা হাতি জন্ম দিল এক হস্তি শাবকের

২০২০ সালে করোনার অতিমারির আবহ রুখতে লকডাউনের (Lockdown) ঘোষণা করা হয়, সেই সময়ে এক ধাক্কায় মদের দাম ৩০ শতাংশ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। এরপর ফের গত নভেম্বর মাসে আরেক ধাক্কায় করের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায়। এভাবে প্রায় ৫০ শতাংশ বৃদ্ধি হয় মদের উপরে করের পরিমাণ। তার ফলাফলেই মদের (Alcohol) দাম ধাপে ধাপে বাড়তে থাকে। এবং সরকারি সূত্রের খবর অনুসারে এই ক্রমশ দাম বৃদ্ধির কারণে কমতে থাকে ক্রেতার সংখ্যাও।

যদিও এতে অনেকেই ঠাট্টার সুরে বলেন,”সুরা প্রেমিদের কাছে খাবারের পয়সা হোক বা না হোক মদ কেনার টাকা ভূতে যোগার করে দেয় ঠিক। লকডাউনের সময় লম্বা লাইন দেখেছেন মদ দোকানের (Shop) বাইরে? দেখলেই বুঝতে পারতেন ঠিক কতটা চাহিদা কমেছে!” তবে আবগারি দফতরের আধিকারিদের মতে মদের উপরে নতুন করের কাঠামো তৈরি করা হয়েছে এবং তা  ইতিমধ্যেই অর্থ দপ্তরের কাছে পাঠিয়েছেন তারা।

আরও খবর: Nusrat Jahan: ফুটফুটে পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন নুসরত জাহান, মা হলেন অভিনেত্রী

সেপ্টেম্বরে কমবে মদের দাম

নতুন কর কাঠামো যদি অর্থ দফতর এর মারফত গ্রহণ করেন, তবে মদের (Alcohol) দাম আশা করা যায় সেপ্টেম্বর অর্থাৎ পুজোর আগেই মদের দাম অনেকটাই কমে যাবে। গতবার মদের দোকানের বাইরে লম্বা লাইন দেখেছেন শহরবাসী এবং তা দেখে অনেকে মন্তব্য ও করেছেন। অনেকে বলেছেন,” এই নাকি সাধারণ মানুষের কাছে টাকা নেই! কিন্তু মদের দোকানের বাইরের লাইন শেষ হওয়ার নাম নেই!” পুরুষের (men) সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মহিলাদেরও (Women) দেখা যায় সেই লাইনে।

প্রচুর মিম ও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media)। সুরাপান নিয়ে ICRIER গোটা দেশে একটি যৌথ সমীক্ষা চালায়, এবং সেই সমীক্ষায় দেখা যায় মদ্যপানের নিরিখে দেখে দ্বিতীয় স্থান দখল করে বসে আছে বাংলা। এবং শীর্ষ স্থানে রয়েছে যোগী রাজ্য উত্তর প্রদেশ।  এবং সেই সমীক্ষাতেই উঠে আসে আরও এক তথ্য যা বলাইবাহুল্য একপ্রকার চক্ষুচড়কগাছ করার পক্ষ্যে যথেষ্ট। রাজ্যের ১কোটি ৫০ লক্ষ্য মানুষ সুরা পান করেন। তাই এই বিভাগ থেকে আসে প্রচুর রাজস্বও।

তবে আবগারি দফতরের মারফত করা নতুন করের মডেল হয়তো কিছুটা পকেটে পয়সা বাঁচাতে সাহায্য করবে সুরা প্রেমিদের। তবে রাম, হুইস্কি এবং স্কচের মতো মদের দাম কমলেও বাড়বে দেশীয় মদের দাম। প্রায় ১০০ থেকে ২০০ টাকা বাড়তে পারে এই ধরনের মদের দাম।তাছাড়াও মদের চোরা  কারবার রুখতে  সম্প্রতি মদের দামের মডেল পরিবর্তন করা হয় এবং চোরা পথে মদ রাজ্যে আসা বন্ধ করা যায় তার জন্য ব্যাবস্থা ও গ্রহণ করে নবান্ন (Nabanna)।

তবে যেহুতু প্রচুর মানুষ কাজ হারিয়েছেন এবং অনেকের বেতন কমে গেছে কিংবা বেতন কাটা যাচ্ছে তাই বিগত কয়েক মাস ধরেই লাইন কমেছে মদ দোকানের বাইরে। এবং রাজস্বের পরিমাণও কমে গিয়েছে বেশ কিছুটা তাই এই সকল দিক গুলো মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্তে তারা পৌঁছেছেন যে, সব ঠিক থাকলে পরের মাসের মধ্যেই কমবে তৃপ্তির তৃষ্ণা মেটানোর একমাত্র উপায় সুরা প্রেমিদের কাছে।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments