Thursday, June 13, 2024
- Advertisment -spot_img

সাঁকরাইলে কোদোপাল পর্যটন কেন্দ্র ঘুরে দেখলেন দুই বিধায়ক

স্টাফ রিপোর্টার, ঝাড়গ্রাম : রবিবার ঝাড়গ্রাম জেলার সাঁকরাইল ব্লকের কোদোপাল টুরিজুম পার্ক পরিদর্শন করলেন বিনপুরের বিধায়ক দেবনাথ হাঁসদা, গোপীবল্লভপুরের বিধায়ক ডাঃখগেন্দ্রনাথ মাহাত, সাঁকরাইল ব্লকের কৃষি কর্মাধ্যক্ষ কমল কান্ত রাউৎ, সাঁকরাইল ব্লকের বিডিও রথীন বিশ্বাস সহ আরো অনেকে। এদিন ওই পার্ক পরিদর্শন করার পর কোদোপাল টুরিজুম পার্ক টিকে আরো সুন্দর ভাবে সাজিয়ে তোলার জন্য ঝাড়গ্রাম জেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন জানাবেন বলে বিধায়ক দেবনাথ হাঁসদা ও ডাঃখগেন্দ্রনাথ মাহাত জানান। ওই পার্ক পরিদর্শন করার পর বিধায়ক ডাঃ খগেন্দ্রনাথ মাহাত বলেন ঝাড়গ্রাম জেলার পর্যটন কেন্দ্রের উন্নয়নের জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেশকিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।পর্যটন কেন্দ্রগুলিকে সাজিয়ে তোলার জন্য যা কিছু প্রয়োজন তিনি তার ব্যবস্থা করেছেন।

সাঁকরাইলে কোদোপাল পর্যটন কেন্দ্র ঘুরে দেখলেন দুই বিধায়ক

READ MORE : গোপীবল্লভপুর হাসপাতালে উদ্যোগে জলবায়ু পরিবর্তন ও মানব স্বাস্থ্য বিষয়ক এক কর্মশালার আয়োজন

সুবর্ণরেখা নদীর ধারে সাঁকরাইল ব্লকের কোদোপাল এলাকার এই পর্যটন কেন্দ্রটি মানুষের কাছে খুবই আকর্ষনীয় হয়ে উঠবে। এই পর্যটনকেন্দ্র টির আরও উন্নয়ন করে তোলার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তিনি ওই এলাকার বাসিন্দাদের বলেন এই ট্যুরিজম পার্ক টি কারো ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়, সবার অধিকার আছে এখানে আসার। তাই এই পার্ক টিকে সুন্দরভাবে সুরক্ষিত রাখার জন্য সকলকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। যাতে বিভিন্ন এলাকা থেকে ভ্রমনপ্রেমী মানুষেরা এই এলাকায় এসে আনন্দ উপভোগ করতে পারে তার জন্য সুন্দর মনোরম পরিবেশে এই পর্যটন কেন্দ্র টি গড়ে তোলা হয়েছে। ওই পর্যটন কেন্দ্রের বাকি কাজগুলি দ্রুত সম্পন্ন করা হবে। তিনি আরো বলেন যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জঙ্গল মহল কে আলাদা চোখে দেখেন। তাই জঙ্গলমহলের উন্নয়নে তিনি সজাগ রয়েছেন।

কোদোপাল পর্যটন কেন্দ্র ঘুরে দেখলেন দুই বিধায়ক

তাই আগামী দিনে আরও ওই এলাকায় উন্নয়নমূলক কাজ হবে বলেও তিনি জানান। বিধায়ক দেবনাথ হাঁসদা বলেন, আগে মানুষ ঝাড়গ্রামে বেড়াতে এলে থাকার জায়গা পেতেন না। কিন্তু এখন অরণ্য সুন্দরী ঝাড়গ্রামে মানুষ বেড়াতে এলে থাকার কোনো অসুবিধা হয় না। নিরাপত্তা ব্যবস্থার কোনো অসুবিধা হয় না। মানুষ সচ্ছন্দে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে বেড়াতে পারে। তাই ঝাড়গ্রাম জেলার পর্যটন কেন্দ্রগুলিকে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে সাজিয়ে তোলার জন্য একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি বলেন জঙ্গলমহলে শান্তি ও উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। উন্নয়নের মাধ্যমে যে শান্তি প্রতিষ্ঠা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী দিনে সেই শান্তি ও উন্নয়নের ধারা যেন বজায় থাকে সেজন্য সকলকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments