Friday, May 31, 2024
- Advertisment -spot_img

বহিরাগত শ্রমিক আসায় মেজিয়া তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পে স্থানীয়দের বিক্ষোভ বাঁকুড়ায়

বাঁকুড়া: শনিবার বিকেলে শতাধিক বহিরাগত শ্রমিক মেজিয়া তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পে কাজে যোগ দিতে আসেন এই খবর পাওয়ার সাথে সাথেই স্থানীয় কিছু বেকার যুবক তাদের ঘিরে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। তাদের দাবি করোনা পরিস্থিতিতে গত দু’বছর ধরে আমরা কাজহারা হয়ে বাড়িতে বসে আছি। আমরা যারা ভিন রাজ্যে কাজ করতাম তারাও কাজ হারিয়ে ফিরে এসেছি। অথচ আমাদের বাড়ির সামনেই এতো বড় একটা শিল্প রয়েছে মেজিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র সেখানে আমরা স্থানীয়রা কাজ পাচ্ছি না অথচ ভিন রাজ্য থেকে শ্রমিক এসে কাজে নিয়োগ হচ্ছে। এখানের ঠিকা সংস্থাগুলি ডিভিসির এক শ্রেনির অসাধু আধিকারিকের মদতে এই কাজ করছে বলে অভিযোগ তাদের।

বহিরাগত শ্রমিক আসায় মেজিয়া তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পে স্থানীয়দের বিক্ষোভ বাঁকুড়ায়

মেজিয়া বিদ্যুৎ প্রকল্প সুত্রের খবর এখানের একটি ইউনিট রক্ষনাবেক্ষন ও সংস্কার কাজের জন্য শাটডাউন নেওয়া হয়েছে । এই কাজে দু’শ শ্রমিক কাজ করবেন দেড় মাসের জন্য। যে ঠিকা সংস্থা এই কাজের বরাদ পেয়েছে তারা ঝাড়খণ্ড, বিহার থেকে শ্রমিক এখানে নিয়ে এসেছে। আর এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে স্থানীয় বেকার যুবকরা। শনিবার বিকেলে বাসথেকে এই সব শ্রমিকরা নামতেই তাদের ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা। এই খবর পেয়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতা তথা গঙ্গাজল ঘাঁটি পঞ্চায়েত সমিতির সহসভাপতি নিমাই মাজি ঘটনাস্থলে আসেন। তিনি এ শ্রমিকদের আমডাঙা পার্টি অফিসে নিয়ে আসেন। সেখানের একটি হল ঘরে তাদের থাকার ব্যাবস্থা করেন এবং তাদের রাতের খাবারের ও ব্যবস্থা করেন।

নিমাই মাজি বলেন, স্থানীয়রা যা দাবি করছেন তা অত্যন্ত যুক্তিপূর্ণ। তাদের এই শাটডাউনে কাজ করারও অভিঞ্জতা রয়েছে কিন্তু ঠিকা সংস্থা গুলি বাইরে থেকে লোক আনে এই কারণে তাদের নূন্যতম মজুরী দেওয়া হয়না বলেই তারা বহিরাগত শ্রমিক এনে কাজ করান। কারন তারা কম বেতন পেলেও কোনো প্রতিবাদ করতে পারেন না।ঠিকা সংস্থার মালিক কে তার প্রতিক্রিয়া জানার জন্য ফোনের মাধ্যমে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পে স্থানীয়দের বিক্ষোভ বাঁকুড়ায়

রবিবার বিকেল প্রর্যন্ত ঐ শ্রমিকরা নিমাই মাজির অফিসেই আটকে ছিলেন। এরপর গঙ্গাজল ঘাঁটির পুলিশ প্রশাসন ও ডিভিসির এম টি পি এস কর্তিপক্ষ, ঠিকা সংস্থার লোকজন ও নিমাই মাজি সমাধান সুত্র বের করার জন্য একটি বৈঠক করেন। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় সংশ্লিষ্ট কাজে অদক্ষ শ্রমিক স্থানীয়দেরকেই নেওয়া হবে। বহিরাগত শ্রমিক যারা এসেছিলেন তাদের মধ্যে যারা দক্ষ সেই সব শ্রমিক বাদ দিয়ে বাকিরা ফিরে গেলেন।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments