Friday, May 31, 2024
- Advertisment -spot_img

রাজ্যে ফের সবুজ-গেরুয়া সংঘর্ষ, মেদিনীপুরে বিজেপি শিবিরে বোমাবাজি

স্টাফ রিপোর্টার, পূর্ব মেদিনীপুর: মহামারী – দূর্যোগ সবকিছুকে একদিকে রেখে রাজ্যের নানা প্রান্তে প্রায়দিনই চলছে শাসক ও বিরোধী দলের সংঘাত। রাজ্যে চলতে থাকা তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনা আতঙ্কের উদ্রেক করছে যথেষ্ট। এবার বিজেপির অস্থায়ী কার্যালয় বোমা মেরে উড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল শাসকদলের বিরুদ্ধে। অভিযোগের তির তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের দিকে। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর বিধানসভার নৈপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের হরিদাসপুরে ঘটে এই ঘটনা। যদিও এই অভিযোগ পুরোপুরি নস্যাৎ করেছে রাজ্যের শাসকদল। ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই এলাকায় প্রবল রাজনৈতিক উত্তেজনা ছড়িয়েছে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে গ্রামে পুলিশি টহল চলছে।

এই বিষয়ে বিজেপির অভিযোগ, পটাশপুর বিধানসভার নৈপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের হরিদাসপুরে রাস্তার পাশে তাদের অস্থায়ী দলীয় কার্যালয় ছিল। কয়েক দিন ধরেই অস্থায়ী দলীয় কার্যালয়টি বন্ধ করে দেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছিল স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। সেই শাসানি মেনে না নেওয়ায়, মঙ্গলবার গভীর রাতে ওই অস্থায়ী কার্যালয়ে বোমা মেরে নিশ্চিহ্ন করে দেয় তৃণমূল, অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের। বোমা ফাটার মুহূর্তে বিকট আওয়াজ শুনে স্থানীয় বাসিন্দারা বেরিয়ে এলে সেখান থেকে দুষ্কৃতীরা চম্পট দেয়।

কাঁথি সাংগঠনিক জেলার বিজেপি সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী বলেন, “পটাশপুর বিধানসভার নৈপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের হরিদাসপুরে ভারতীয় জনতা পার্টির দলীয় কার্যালয়কে পরিকল্পিতভাবে বোম মেরে উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। একেবারে মাওবাদী কায়দায় কার্যালয়ে ঢুকে একের পর এক বোমা রেখে বাইরে থেকে বিস্ফোরণ করা হয়েছে। শাসকদল বোমা-বন্দুক নিয়ে খেলা শুরু করেছে। মানুষের আক্রোশ আছড়ে পড়বে, বেহায়া শাসকদল নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে।”

এই অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছে তৃণমূল নেতারা। পটাশপুরে তৃণমূল বিধায়ক উত্তম বারিক বলেন, “এই অভিযোগ পুরোপুরি ভিত্তিহীন। এলাকায় অশান্তি সৃষ্টি করার জন্য অস্থায়ী দলীয় কার্যালয়ে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা বোমা মজুত করে রেখেছিল। সেই বোমা বিস্ফোরণে ফলে অস্থায়ী দলীয় কার্যালয়টি উড়ে গিয়েছে। বিজেপি এখন নাটক করছে। পুলিশ তদন্ত করলেও প্রকৃত তথ্য প্রকাশ পাবে।”
তবে পুলিশ এখনো তদন্ত চালাচ্ছে, সঠিক তথ্য প্রমান দেখেই পুলিশ সম্পূর্ণ ঘটনার প্রকৃত সত্য উন্মোচিত হবে।

____
_______

Epidemics – Disasters Putting everything aside, clashes between the ruling party and the opposition have been going on in different parts of the state. The ongoing Trinamool BJP clashes in the state are causing a lot of panic. This time, the ruling party was accused of bombing the BJP’s temporary office. The arrow of accusation is directed towards the grassroots miscreants. The incident took place at Haridaspur in Naipur gram panchayat of Patashpur assembly constituency in East Midnapore district. However, the ruling party has completely refuted this allegation. As soon as the news of the incident became public, strong political tension spread in the area. Police patrol is going on in the village as the situation is strange.

The BJP alleges that they had a temporary party office on the side of the road at Haridaspur in the Naipur gram panchayat of the Potashpur assembly. For days, the local grassroots leadership had been threatening to close the temporary party office. Failing to heed the threat, the Trinamool bombed the temporary office late Tuesday night, allegedly by the Gerua camp. At the moment of the bomb blast, the local residents came out after hearing a loud noise and the miscreants fled from there.

Anup Chakraborty, BJP president of Kanthi organizing district, said, “The Bharatiya Janata Party (BJP) office in Haridaspur of Naipur gram panchayat of Potashpur assembly has been bombed in a planned manner. The people’s anger will be crushed, the brazen ruling party will be wiped out. “Trinamool leaders have completely denied this allegation. Patashpur Trinamool MLA Uttam Barik said, “The allegation is completely baseless. BJP workers and supporters had stockpiled bombs in the temporary party office to create unrest in the area. The bomb blast blew up the temporary party office. Will be published. “However, the police are still conducting an investigation.

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments