Friday, May 31, 2024
- Advertisment -spot_img

জাতীয় ফুটবল দলে সুযোগ ঝাড়গ্রামের মমতার

স্টাফ রিপোর্টার, ঝাড়গ্রাম: ঝাড়গ্রাম জেলার সাঁকরাইল ব্লকের প্রত্যন্ত গ্রামের মেয়ে মমতা হাঁসদা এবার সিনিয়ার মহিলা ফুটবল টিমে সুযোগ পেয়েছেন। ইন্টার ন্যাশেনাল টুর্নামেন্টের ১৪ জনের দলের এক অন্যতম সদস্য এই মিড ফিল্ডার। ঝাড়গ্রামের মেয়ে মমতা হাঁসদা এর এহেন প্রতিভার খবর পেয়েই গোপীবল্লবপুর বিধানসভার বিধায়ক ডাঃ খগেন্দ্রনাথ মাহাত শুভেচ্ছা জানাতে পৌছে যান তার বাড়িতে। আরো ভালো খেলার পরামর্শ দেন তিনি। খেলাধূলা ভালো করে চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে পাশে থাকার আশ্বাসও দেন তিনি। প্রত্যন্ত গ্রামের আদিবাসী পরিবারের মেয়ে মমতা হাঁসদা।  পরিবারের ছোটো মেয়ে সে। বেশ অভাবের মধ্যেই দিন কাটে।

গোপীবল্লবপুর বিধানসভার বিধায়ক ডাঃ খগেন্দ্রনাথ মাহাতোর শুভেচ্ছা, নিজস্ব চিত্র

আরও খবর: BREAKING: ঝাড়গ্রামে স্কুল পড়ুয়ার পথে বাঁধা দিলো দাঁতাল হাতি

দুই দিদি এক দাদা এবং মা কে নিয়ে পরিবার। বাবা নেই। ছোটো থেকেই রান্নাবাটির বদলে ছেলেদের সাথে খেলতে পছন্দ করতো মমতা। শহরের মেয়েরা এখন ছেলেদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চললেও প্রত্যন্ত গ্রামের মেয়ে সে, কিকরে সম্ভব? যে বয়সে অন্যান্য বান্ধবীদের বিয়ে হয়ে তারা তাদের নতুন জীবন শুরু করছে, সেখানে গ্রামের এই পুরাতন মানসিকতার সঙ্গে কীভাবে মানিয়ে নেবে সে? না কেও কোনও ভাবেই হারাতে পারেনি তাকে। তার স্বপ্ন পূরণের স্বপ্নের প্রতি পূর্ণ আস্থা ছিল তার। দিনের পর দিন এগিয়ে যেতে থাকে মমতা। একটু বড় হওয়ার পর ও ছেলেদের সাথেই ফুটবল খেলা টাকে বেছে নেয় সে।

জাতীয় ফুটবল দলে সুযোগ ঝাড়গ্রামের মমতার

তারপর ই বর্তমান সরকারের খেলা ধূলার উপর বিশেষ জোর দেওয়ায়, শুরু হয় জঙ্গল মহল কাপ। সরকারি এই টুর্নামেন্ট ই জীবন বদলে দেয় মমতার। এবং স্বপ্ন পূরণের প্রথম ধাপে জয় হয় তার। মহিলাদের টিমে সহজেই জায়গা করে নেয় মিডফিল্ডার মমতা। মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে বেষ্ট প্লেয়ার স্কুটিও উপহার পায় সে। এরপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একের পর এক সুজোগ আসতে থাকে তার কাছে। আর তার যোগ্য প্রমান ও দিতে থাকে মমতা।

মমতা ও তার মা, নিজস্ব চিত্র

আরও খবর: সাঁকরাইলে বিজেপি ছেড়ে ৫০০ জন যোগদান করলো তৃণমূল কংগ্রেসে

জুনিয়ার, আন্ডার নাইন্টিন এ ন্যাশেনাল, সুব্রত কাপ খেললেও ইন্ডিয়া টিমের সিনিয়ার প্লেয়ার হিসেবে ইন্টার ন্যাশেনালে সুযোগ এই প্রথম। আর এই সুযোগ কেই কাজে লাগিয়ে আগামী দিনে আরো ভালো প্লেয়ার হওয়ার স্বপ্ন দেখছে মমতা। বর্তমান সরকারের খেলা প্রকল্প যে কতো প্রতিভার জন্মদিচ্ছে তার জ্বলন্ত উদাহরন ঝাড়গ্রাম জেলার সাঁকরাইলের এই মহিলা ফুটবল টিম। এখান থেকে একাধিক মেয়ে ভালো খেলে আরো বড়ো জায়গায় খেলার সুযোগ করে নিতে পারছে।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments