Thursday, June 13, 2024
- Advertisment -spot_img

চা পান করলেই শুধু হবে না, জানুন বিভিন্ন স্বাস্থ্যগুণ

জঙ্গলমহল বার্তা নিউজ ডেস্ক: চা খেতে অনেকেই ভালোবাসেন । বিশেষ করে শীতের সকালে কিংবা বিকেলের দিকে চা খাওয়ার আনন্দ অন্যরকম। মনখারাপে, বিরক্তিতে ক্লান্তিতে , কিংবা হালকা গল্পের মেজাজে চা চাইই। আমারা চা বলতে বুঝি ভালো করে দুধ চিনি দিয়ে ফোটানো মিষ্টি চা । তার সঙ্গে আদা ও নানারকম মসলা যোগ করলে তো কথাই নেই । এতে চায়ের মিষ্টি ভাব এবং স্বাদ ও গন্ধ কে নিখুঁত করে তোলে। শুধু মন ভালো রাখতেই নয়, শরীর সুস্থ রাখতে চা পানের বিকল্প কিছু নেই । এখন বাজারে এসেছে নানা প্রকার চা । কোনটি আপনার সারাদিনের ডায়েট থাকলে ভালো, কেন ভালো সেটা জেনে নিন ।

চা পান করলেই শুধু হবে না

আরও খবর: করোনায় বেহাল ঝাড়গ্রামের স্বাস্থ্য ব্যাবস্থা

গ্ৰিন টি:  সমীক্ষা দেখা গেছে যে একজন প্রাপ্তবয়স্ক, সুস্থ ব্যক্তি দিনে – চার পাঁচ কাপ গ্ৰিন টি পান করতেই পারেন নিঃসন্দেহে। এই চা ৭০% হ্যার্ট আর্টাকের সম্ভাবনা কমায়। বিভিন্ন গবেষণায় তথ্য গ্ৰিন টি টাইপ – ২ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করে। যাদের দাঁতে বা মাড়ির সমস্যা রয়েছে তাঁদের চা পানে অনেক উপকার মেলে। গ্ৰিন টি মধু দিয়ে পান করা অনেক বেশি ভালো। মহিলাদের ৩০- বছর বয়সের উপর হাঁড়ের ক্ষয় ও পেশী দুর্বলতা প্রতিরোধ করে। গ্ৰিন টিতে আছে ক্যাথোচিন’ নামক ফ্লাভেনয়েড অত্যন্ত প্রয়োজনীয় আন্টিঅক্সিডেন্ট। গ্ৰিন টিতে আন্টি অক্সিডেন্টের মাত্রা অনেক বেশি। এই চায়ে ক্যাফিনের মাত্রা অনেক কম। চুল পড়ার সমস্যা কমে।

হোয়াইট টি: একদম কচি পাতা থেকে যে চা তৈরি হয় তাই হল হোয়াইট টি। এই চা সবচেয়ে দামী। এই চায়ের লিকারের রং হালকা হলুদ বর্ণের হয়। আন্টিঅক্সিডেন্টের মাত্রা গ্ৰিন টি – এর চেয়েও বেশি।

ওলং টি: এই চা একদম কচি চা পাতা থেকে তৈরি, তবে হোয়াইট টি এর চেয়ে একটু আলাদা। এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। এই চায়ে ঔষধি গুণ অনেক।

হার্বাল চায়ের মধ্যে :

১. সিনেমন চা ; চা পাতার সঙ্গে অল্প দারুচিনি গুঁড়া মিশিয়ে এই চা পান করলে স্মৃতিশক্তি ঠিক রাখে , সিস্ট( পিসিওএস) সমস্যা ভালো রাখে , ওজন কমায়, হার্ট ভালো রাখে , রক্তে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে ।

 

২. তুলসি চা ; সর্দি কাশিতে তুলসী পাতা মধু চায়ের সঙ্গে মিশিয়ে পান করলে উপকারী । ফুসফুসের কার্যকারিতা ঠিক রাখে । রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে ।

৩. আদা চা ; এই চায়ের সঙ্গে লবঙ্গ থেঁতো করলে আন্টিসেপটিক , আন্টিভাইরাল , আন্টিব্যাকরেটিয়াল এই উপসর্গগুলো থেকে মুক্তি পাওয়ার সম্ভব ।

 

৪. আদা চা ; ৪ গ্ৰাম আদা চা মিশিয়ে পান করলে অনেক ভিটামিন , আয়রন , পটাশিয়াম , ফসফরাস ইত্যাদি মিনারেল মিলবে । রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ে । টেনশান বা স্ট্রেস থেকে পেটের সমস্যা রোধ করে , আলার্জি, ব্রংকাইটিস প্রতিরোধ করে । রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ রাখে ।

৫. লেবু চা ; ওজন কমায় , ক্লান্তি কমায় , রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় ।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments