Monday, July 22, 2024
- Advertisment -spot_img

এক নজরে পশ্চিম মেদিনীপুর

 এক নজরে পশ্চিম মেদিনীপুর         

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় বিজেপি দল ছেড়ে এক হাজারেরও বেশি বিজেপি কর্মী সমর্থক যোগদান করলো তৃণমূল কংগ্রেস

এক নজরে: রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়গপুর গ্রামীণ ,সবং ও কেশিয়াড়ি ব্লকে বিজেপি দল ছেড়েএক হাজারের বেশি বিজেপি কর্মী সমর্থক আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। বিধানসভা
নির্বাচনের পর ভাঙ্গন শুরু হয়েছে বিজেপির অন্দরে।মুকুল রায় ও তাঁর ছেলে বিজেপি দল ছাড়ার  রেশ কাটতে না কাটতেই রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়গপুর লোকাল থানার অন্তর্গত ৩ নং লছমাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের রাধানগর সংসদের ৩০ টি পরিবার ও রাধা কিশোর এলাকার ৫০ টি পরিবারের প্রায় ৪০০ জন বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করলেন।তাদের হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দেন তৃণমূল এর পঞ্চায়েত প্রধান নান্টু দোলই সহ দলের অন্যান্য নেতারা।

আরও খবর- মেদিনীপুরের বিধায়ক জুন মালিয়া মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সামনে রোগীর আত্মীয়দের হাতে খাবার তুলে দিলেন

খড়গপুর গ্রামীন এর পাশাপাশি রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং বাজারে তৃণমূল কংগ্রেসের কার্যালয়ে সবং ব্লকের বিষ্ণুপুর অঞ্চলের ১০০ টি পরিবারের প্রায় ৫০০জন বিজেপি দল ছেড়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। তাদের হাতে তৃণমূল কংগ্রেসের পতাকা তুলে দেন রাজ্যের জল সম্পদ উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী ডাক্তার মানস ভুঁইয়া,প্রাক্তন বিধায়ক গীতা ভুঁইয়া, তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা অমল পন্ডা ,আবু কালাম বক্স সহ আরো অনেকে ।বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া সকলের হাতে তৃণমূল কংগ্রেসের পতাকা তুলে দেওয়ার পর রাজ্যের জল সম্পদ উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী ডাক্তার মানস ভুঁইয়া তাদেরকে ভালোভাবে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। সেই সঙ্গে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করার জন্য তাদের সকল কে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান।

এছাড়াও রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশিয়াড়ির দীপা এলাকায় বিজেপি দলের শতাধিক কর্মী বিজেপি দল ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন ।তাদের হাতে তৃণমূল কংগ্রেসের পতাকা তুলে দেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের রাজ্য কমিটির সম্পাদিকা কল্পনা সীট সহ দলের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। বিধানসভা নির্বাচনের পর পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা জুড়ে বিজেপির ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। যেভাবে বিজেপি দল ছেড়ে দলে দলে মানুষ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করছে তাতে বিজেপি নেতাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে।

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়গপুর এলাকায় বজ্রপাতে এক শিশুসহ দুই জনের মৃত্যু ,আহত একজন

এক নজরে: রবিবার বিকেলে ও সন্ধ্যায় সময় খড়্গপুর গ্রামীণ ব্লকের দুটি এলাকায় বজ্রপাতে মৃত্যু হয়েছে এক শিশু সহ ২ জনের। সেই সঙ্গে আহত হয়েছে এক জন। এদিন বিকেলে বৃষ্টির সময় খড়গপুর লোকাল থানার গোকুলপুরের পূর্ব আম্বা গ্রামে শেখ সাইফুল (৯) গাছের তলায় খেলছিল । এসময় বাজ পড়লে ঘটনাস্থলে সে মারা যায় । গুরুতর আহত হয়েছে ওপর এক শিশু। এছাড়া ও ওই এলাকায় থাকা একটি গরুর ও মৃত্যু হয়েছে।
অপর ঘটনাটি ঘটেছে খড়গপুর লোকাল থানার খুদামা গ্রামে সন্ধ্যার সময় ।

মাঠে থাকা ছাগল নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন মন্টু মাহাতো (১৯) । এসময় বাজ পড়লে তাঁর মৃত্যু হয়। বজ্রপাতে আহত শিশুটিকে খড়্গপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা সংকটজনক। খড়গপুর লোকাল থানার পুলিশ বজ্রপাতে মৃত শিশুসহ 2 জনের মৃতদেহ উদ্ধার করে খড়্গপুর মহকুমা হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।তবে ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওইএলাকায় ও তাদের পরিবারে শোকের ছায়া নেমে আসে।খড়গপুর গ্রামীন এর বিধায়ক দিনেন রায় বজ্রপাতে মৃত দুই পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানায় এবং তাদের পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

 

টিম ছত্রছায়ার রান্নাঘর প্রকল্প রবিবার রবিবার ১২ তম দিনে পড়ল

 এক নজরে পশ্চিম মেদিনীপুর     

এক নজরে: টীম ছত্রছায়ার রান্নাঘর প্রকল্প রবিবার বারো তম দিনে তারা পৌঁছে গিয়েছিলো শাল মহুলে ঘেরা জঙ্গলমহলের আদিবাসী অধ্যুষিত শালবনি থানার গড়মাল অঞ্চলের দহ গ্রামে। মেদিনীপুর শহর লাগোয়া মাদারপুর এলাকার বাসিন্দা রমাপ্রসাদ দের স্বর্গীয় মাতা ঠাকরুন করোনা আক্রান্ত হয়ে কয়েকদিন আগেই পরলোক গমন করেছেন। কোভিড প্রোটোকলে কোনো পারলৌকিক অনুষ্ঠান না করলেও ছত্রছায়া গ্রুপের কর্মকাণ্ডে অনুপ্রাণিত হয়ে গ্রুপের সাথে যোগাযোগ করেন রমাপ্রসাদ দে। মায়ের আত্মার শান্তি কামনা করে কিছু অসহায় মানুষের হাতে খাবার তুলে দেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেন।

আরও খবর- মেদিনীপুর শহরে স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবিরের উদ্বোধন করলেন রাজ্যের প্রতিমন্ত্রী শ্রীকান্ত মাহাতো

সেইমতো রবিবার স্বর্গীয়া রেখা দেবীর শৌচকর্মের দিনে ছত্রছায়ার রান্নাঘর প্রকল্পে রান্না করা খাবার তুলে দেওয়া হলো। বিধি মেনে পাঁচজন পুরোহিতের হাতে ভগবত গীতা, পিতলের রেকাব, নগদ দক্ষিণা সহ মধ্যাহ্ন ভোজন করানো হয়। পুরো অনুষ্ঠানের মতোই খাবারের আয়োজন করা হয়। ছত্রছায়ার এই উদ্যোগে গ্রামবাসীরাও খুশি মনে ওনার আত্মার শান্তি কামনা করেন। রমাপ্রসাদ বাবুর মায়ের পারলৌকিক কাজে ছত্রছায়ার পাশে থাকার জন্য গ্রুপের সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

আরও খবর- অভ্যন্তরে গলদ পার্টির শুদ্ধিকরণ প্রয়োজন, দাবি করে দলত্যাগ ঝাড়গ্রামের উৎপল দাস মহাপাত্রর

ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গ্রুপের পক্ষ থেকে নুতন ঘোষ, দেবাশীষ মন্ডল ,মালা মুর্মু, সন্তোষ ( রাজা ) ভকত, অর্ণব দাস ,সুব্রত ভকত ,প্রশান্ত মাইতি, তরুণ দণ্ডপাট, শুভদীপ মন্ডল রাজু গরাই কৃষ্ণেন্দু দোলুই, ঋত্বিক ঘোষ, রোহিনী পোড়া ও গ্রামীণ চিকিৎসক হারাধন দুয়ারী।

অনান্য খবর:-

 

-advertisement-

কম খরচে বিজ্ঞাপনের জন্য আজই যোগাযোগ করুন

 

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments