Thursday, May 30, 2024
- Advertisment -spot_img

এক নজরে পশ্চিম মেদিনীপুর

  এক নজরে পশ্চিম মেদিনীপুর              

তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে মেদিনীপুর শহরে দরিদ্রদের খাবার বিতরন ২৫ তম দিনে পড়ল

এক নজরে, পশ্চিম মেদিনীপুর: করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার জন্য রাজ্য প্রশাসন বেশ কিছু বিধিনিষেধ জারি করেছে । যার ফলে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। সেই সঙ্গে বন্ধ রয়েছে হোটেল খাওয়ার দোকান গুলি ।যার ফলে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর আত্মীয় স্বজনেরা ও মেদিনীপুর শহরের দরিদ্র মানুষেরা চরম অসুবিধার মধ্যে পড়েছেন । তাই মেদিনীপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর আত্মীয় স্বজনদের পাশাপাশি দরিদ্র মানুষদের হাতে রান্না করা খাবার বিতরণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করে। বৃহস্পতিবার তৃণমূল কংগ্রেসের খাবার বিতরণের উদ্যোগ ২৫ দিন পূর্ণ করলো। তৃণমূল কংগ্রেসের মেদিনীপুর শহর কমিটির সভাপতি বিশ্বনাথ পাণ্ডব, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোপাল সাহা, সম্পাদক সুজয় হাজরা উপস্থিত থেকে দরিদ্র মানুষদের হাতে রান্না করা খাবার তুলে দেয় । তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোপাল সাহা বলেন একটানা ২৫ দিন মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর আত্মীয় স্বজনদের খাবার তুলে দেওয়ার পাশাপাশি করোনা আক্রান্ত পরিবারদের বাড়িতে রান্না করা খাবার আমরা পৌঁছে দিয়েছি ।তেমনি দরিদ্র মানুষদের হাতে রান্না করা খাবার তুলে দিয়েছি ।আগামী দিনে এই কর্মসূচি চলবে ।তিনি বলেন দল নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মানুষের পাশে থেকে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। তাই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের হাতে দুটো খাবার তুলে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে খুশি মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর আত্মীয় স্বজনরা ।তারা তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে স্বাগত জানিয়েছেন।
______

জীবাণু নষ্ট করার জন্য মেদিনীপুর শহরের দুটি বাজার স্যানিটাইজ করল তরুণ সংঘ ক্লাবের সদস্যরা

এক নজরে, পশ্চিম মেদিনীপুর: বৃহস্পতিবার মেদিনীপুরের তরুণ সংঘ ক্লাবের পক্ষ থেকে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পুলিশের অনুরোধে মেদিনীপুর শহরের গেট বাজার ও বিধাননগর মাঠের বাজার স্যানিটাইজ করা হয়।
উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অম্লান কুসুম ঘোষ , ক্লাবের সম্পাদক শান্তুনু চক্রবর্তী , নন্দলাল ভকত , তপন ভকত প্রমুখ।
এই কর্মসূচি লাগাতার চলবে বলে তাঁরা জানান। তরুণ সংঘ ক্লাবের সম্পাদক শান্তনু চক্রবর্তী বলেন করোনা পরিস্থিতির জন্য পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে বাজার গুলিকে স্যানিটাইজ করার জন্য ক্লাবের কাছে অনুরোধ করা হয়। জেলা পুলিশের অনুরোধে বৃহস্পতিবার থেকে মেদিনীপুর শহরের বিভিন্ন বাজার গুলিকে জীবাণুমুক্ত করার জন্য স্প্রে মেশিন দিয়ে সানটাইজ করার কাজ শুরু করা হয়। যা আগামী দিনেও তারা মেদিনীপুর শহরের বিভিন্ন বাজারে চালিয়ে যাবেন বলে জানান। তরুণ সংঘ ক্লাবের সদস্যরা ওই কাজে হাত লাগিয়েছিল বলে তিনি জানান। তরুণ সংঘ ক্লাবের উদ্যোগে খুশি মেদিনীপুর শহরের বাসিন্দারা। তরুণ সংঘ ক্লাবের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে জেলা পুলিশ। তরুণ সংঘ ক্লাবের অন্যতম সদস্য নন্দলাল বলেন করোনা নিয়ে ভয় পাবেন না। আতঙ্কিত হবেন না ,সচেতন হবেন। মাস্ক ব্যবহার করবেন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখবেন। রাজ্য সরকারের বিধি নিষেধ গুলি মেনে চলবেন ।সেই সঙ্গে তিনি বাজারের সমস্ত ব্যবসায়ীদের কাছে আবেদন করে বলেন যেখানে সেখানে নোংরা আবর্জনা ফেলবেন না। নির্দিষ্ট জায়গায় নোংরা আবর্জনা ফেলবেন। বাজারকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য সকলেই একসঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করবেন।
______

মেদিনীপুর সমন্বয় সংস্থার উদ্যোগে তাজপুর এলাকায় ত্রাণ বিতরণ

এক নজরে, মেদিনীপুর: মেদিনীপুর সমন্বয় সংস্থার মেদিনীপুর শহর আঞ্চলিক ইউনিটের পক্ষ থেকে ইয়াস ঘূর্ণিঝড় ও সামুদ্রিক জলোচ্ছ্বাসে বিধ্বস্ত পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথির বালিসাই এর নিকটবর্তী তাজপুর বন্দর সংলগ্ন পশ্চিবঙ্গের বৃহত্তম মৎস খটি জলদা খটিতে কর্মরত প্রায় পঞ্চাশটি দুঃস্থ পরিবারকে ত্রিপল প্রদান করা হয়।
এদিনই কাঁথির জুনপুট সংলগ্ন হরিপুরে আরও পঞ্চাশটি দুঃস্থ পরিবারের হাতে ত্রাণ সামগ্রী হিসেবে পাঁচ কেজি চুন, ব্লিচিং,সাবান, মাস্ক,স্যানিটাইজার ও বেশকিছু শুকনো খাবার তুলে দেওয়া হয়। এই দুই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন মেদিনীপুর শহর আঞ্চলিক ইউনিটের সহকারী সম্পাদক অমিতাভ দাস, কার্যনির্বাহী সমিতির দুই সদস্য উত্তম কুমার রায় ও দেবীপ্রসাদ নন্দী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উত্তম ছেত্রী, ছিলেন সংস্থার কাঁথি-এগরা আঞ্চলিক ইউনিটের সদস্য উমাপ্রসাদ নন্দী ও কাঁথি মৎস্যজীবী খটি উন্নয়নের সংগঠক রাজকুমার পণ্ডা, অনন্ত বর, বালিসাই-এর কমলেশ পড়িয়ারী প্রমূখ।এই ত্রাণ বিতরণ কর্মসূচি রূপায়ণে সহযোগিতা করেন সংস্থার কাঁথি-এগরা আঞ্চলিক ইউনিটের সম্পাদক অধ্যাপক হৃষিকেশ পড়িয়া। মেদিনীপুর টাউন আঞ্চলিক ইউনিটের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন সভাপতি মানিক চন্দ্র ঘাঁটা ও সম্পাদক মৃত্যূঞ্জয় খাটুয়া।
______

পাথরপ্রতিমা এলাকায় দুর্গত মানুষদের হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিলো একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন

এক নজরে, পশ্চিম মেদিনীপুর: বৃহস্পতিবার ন্যাশনাল হিউম্যান ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন এর দক্ষিণ 24 পরগনা জেলা বোর্ডের উদ্যোগে ও আজিজ উসমানী, জাতীয় সম্পাদক এর তত্ত্বাবধানে পাথর
প্রতিমা এলাকার বৎস্যা গ্রামের দুঃস্থ অসহায় মানুষের হাতে শুকনো খাবার সহ রেশন দ্রব্য পৌঁছে দেওয়া হয়। এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা সভাপতি কবির হোসেন, জেলা বোর্ডের মেম্বার সোমনাথ মুখার্জী, সেলিম ইউসুফ, গৌর পাত্র, ইসরাফিল মোল্লা, মঈনউদ্দিন মল্লিক, সৌমিত্র দাস, অসীম দাস, সেক আককাস, শরিফুল মোল্লা, আব্দুল মাজেদ মোল্লা সহ আরো জেলা ও ব্লকের কর্মীবৃন্দ।
সংগঠনের জাতীয় সম্পাদক জানান আমরা সবসময় মানুষের পাশে ছিলাম এবং যতদিন বাঁচবো এইভাবেই মানুষের পাশে থাকবো এবং আবেদন করছি যেনো প্রতিটা স্তরের মানুষ ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে যেনো এগিয়ে এসে এই সব মানুষগুলোর পাশে দাঁড়ায়। সেই সঙ্গে তিনি বলেন ইয়াশ ঘূর্ণিঝড়ে এই এলাকার প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। দুর্গত মানুষেরা অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন। তাই দুর্গত মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সংগঠনের পক্ষ থেকে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। আগামী দিনেও সংগঠনের পক্ষ থেকে এই এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সাহায্য করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

RELATED ARTICLES

कोई जवाब दें

कृपया अपनी टिप्पणी दर्ज करें!
कृपया अपना नाम यहाँ दर्ज करें

spot_img

Most Popular

Recent Comments